Thursday , August 11 2022
প্রচ্ছদ / বিশ্ব / শান্তিরক্ষীদের যৌন অপরাধ ঠেকাতে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাস

শান্তিরক্ষীদের যৌন অপরাধ ঠেকাতে জাতিসংঘে প্রস্তাব পাস

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে উত্থাপিত বিভিন্ন যৌন নির্যাতনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার একটি প্রস্তাব পাস করেছে নিরাপত্তা পরিষদ। ওই প্রস্তাবে বলা হয়েছে, কোনো শান্তিরক্ষীর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের প্রমাণ পাওয়া গেলে তাকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হবে।

শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে গত কয়েক বছরে যেসব যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এই প্রথম নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাব পাস হলো।

নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্য দেশের মধ্যে চৌদ্দটি দেশ প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয়। তবে ভোটদানে বিরত ছিল মিশর। কায়রোর করা কিছু সংশোধনীর প্রস্তাব গৃহীত না হওয়ায় তারা ভোটদানে বিরত ছিল।

গতবছর জাতিসংঘের ১০টি মিশনের শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণসহ যৌন নির্যাতনের ৬৯টি অভিযোগ ওঠে। ২০১৪ সালে এই অভিযোগের সংখ্যা ছিল ৫২টি। জাতিসংঘ মিশনের হয়ে বিভিন্ন দেশে কর্মরত শান্তিরক্ষী বাহিনীর সামরিক সদস্য, আন্তর্জাতিক পুলিশ এবং  অন্যান্য শাখার কর্মী ও স্বেচ্ছাসেবীদের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ উঠেছিল। সবচেয়ে গুরুতর অভিযোগ ওঠে আফ্রিকার দেশ কঙ্গোতে কয়েকটি দেশের শান্তিরক্ষীদের বিরুদ্ধে।

জাতিসংঘের আইন অনুযায়ী, কারো বিরুদ্ধে এরকম অভিযোগ উঠলে, সংশ্লিষ্ট দেশ তার তদন্ত করবে এবং ব্যবস্থা নেবে। কিন্তু এ ধরণের ঘটনা রোধে জাতিসংঘের ব্যর্থতারও অভিযোগ ওঠে।

যুক্তরাষ্ট্রের করা এই খসড়া প্রস্তাবে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়া যাবে, তাদের দেশে পাঠিয়ে দেয়ার কথা উল্লেখ রয়েছে। ওই অভিযোগ তদন্তে শান্তিরক্ষী কন্টিনজেন্টের গাফিলতি দেখা গেলে, পুরো দলটিকেই দেশে পাঠানো হবে। তবে জাতিসংঘের এই প্রস্তাবে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বেশ কিছু দেশ। তাদের আশঙ্কা এই প্রস্তাব পাস করার ফলে নিরপরাধ সৈন্যরাও হয়রানির  শিকার হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.