Thursday , August 18 2022
প্রচ্ছদ / জাতীয় / শফিক রেহমানকে আদালতে নেওয়া হবে ২টার পর

শফিক রেহমানকে আদালতে নেওয়া হবে ২টার পর

অনলাইন : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টার মামলায় গ্রেফতার সাংবাদিক শফিক রেহমানকে আদালতে তোলা হবে দুপুর ২টার পর।

শনিবার সকালে রাজধানীর ইস্কাটনের বাসা থেকে বিএনপিঘনিষ্ঠ এই সাংবাদিককে গ্রেফতার করা হয়।

ঢাকা মহানগর পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্র সমকালকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্রটি জানায়, আদালতে নেওয়ার পর পুলিশের পক্ষ থেকে রিমান্ড চাওয়া হবে।

এরআগে ঢাকা মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (মিডিয়া) মারুফ হোসেন সরদার জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টার ঘটনায় অপরাধমূলক ষড়যন্ত্রের মামলায় শফিক রেহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের দাবি, প্রধানমন্ত্রীর ছেলেকে অপহরণ ও হত্যা চেষ্টার ওই ঘটনার মামলায় শফিক রেহমানের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যাওয়ার পরই তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বিএনপিঘনিষ্ঠ সাংবাদিক শফিক রেহমানের স্ত্রী তালেয়া রেহমান জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ডিবি পরিচয়ে কয়েকজন লোক তাদের বাসায় ঢুকে শফিক রেহমানকে তুলে নিয়ে যান।

২০১৫ সালের ৯ মার্চ একটি জিডির তদন্ত শেষে আদালতের অনুমতি নিয়ে ৩ আগস্ট রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করা হয়।

গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক ফজলুর রহমান ওই মামলাটি করেন যাতে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার এক নেতাসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করা হয়।

ওই মামলায় বলা হয়, ২০১১ সালে জাসাসের সহসভাপতি মোহাম্মদ উল্লাহ মামুনসহ বিএনপি ও তার নেতৃত্বাধীন জোটভুক্ত অন্যান্য দলের উচ্চ পর্যায়ের যোগসাজশে প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয়কে অপহরণের পর হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়। তারা পল্টনে জাসাস কার্যালয়, আমেরিকার নিউইয়র্ক শহর ও যুক্তরাজ্যে বৈঠক করেন। এ ছাড়া বাংলাদেশের অন্যান্য জায়গাতেও তারা একত্র হয়ে ষড়যন্ত্র করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.