Wednesday , August 10 2022
প্রচ্ছদ / সারাদেশ / শীতে কাঁপছে রাজশাহী

শীতে কাঁপছে রাজশাহী

রাজশাহী প্রতিনিধি|সময়কন্ঠ.কম ।।

রাজশাহী: পৌষের শুরুতে রাজশাহীতে কামড় বসিয়েছে শীত। হঠাৎ করেই তাপমাত্রার পারদ নেমে এসেছে নিচে।
সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রাজশাহীতে তাপমাত্রা নেমে এসেছে ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। আবহাওয়া অফিস বলছে, এটি চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। ফলে রাজশাহীর ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ শুরু হয়েছে। তাই দিনের তাপমাত্রা আরও কমতে পারে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সোমবার সকাল থেকে হু হু করে বইছে ঠাণ্ডা বাতাস। দিনভর হিমেল হাওয়ায় স্বাভাবিক জীবনযাত্রা বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে পথের ধারে থাকা ছিন্নমূল মানুষগুলো এখনই শীতে জবুথবু হয়ে পড়েছে। ভোরে ঘন কুয়াশা থাকলেও সকাল থেকেই সূর্যের মুখ দেখা গেছে।

তবে আকাশের বুকে দিনভরই চলেছে মেঘ ও সূর্যের লুকোচুরি খেলা। মধ্য দুপুরে ঘোলাটে আকাশ ফুটে মায়াবী সূর্য হাসলেও তার সেই কিরণ উত্তরের শীতার্ত মানুষগুলোর শরীরে আজ উষ্ণতা ছড়াতে পারেনি।

ফলে কনকনে ঠাণ্ডায় অসহনীয় হয়ে উঠেছে রাজশাহীর জনজীবন। হিমালয় ছুঁয়ে আসা ঠাণ্ডা বাতাস শীতের তীব্রতাকে আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। হাড় কাঁপানো শীতে কাহিল হয়ে পড়েছে রাজশাহীসহ উত্তরাঞ্চলের মানুষ। তবে শীত বাড়লেও এখন পর্যন্ত সরকারিভাবে শীত বস্ত্র বিতরণ শুরু হয়নি। তবে বেসরকারিভাবে শীতবস্ত্র বিতরণ চলছে।

উদ্ভুত পরিস্থিতিতে রাজশাহীর চর ও গ্রামাঞ্চলেও বেড়েছে শীতের তীব্রতা। এসব এলাকার মানুষগুলোকে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা যাচ্ছে।

হঠাৎ করে শৈত্যপ্রবাহ শুরু হওয়ায় তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে রাজশাহীতে। এতে কৃষিতেও দেখা দিয়েছে বিপর্যয়। বিশেষ করে শৈত্যপ্রবাহ দীর্ঘাস্থায়ী হলে কৃষকের মাঠে থাকা আলুর ফসলে লেট ব্লাইট (পচন রোগ) ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। বোরো ক্ষেতের বীজতলায় কোল্ড ইনজুরির আশঙ্কাও। ফলে সাধারণ কৃষকরা এখনই দুশ্চিন্তা পড়েছেন।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর বলছে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নামলেই আলুক্ষেতে লেট ব্লাইট দেখা দেয়। এজন্য এ সময় কৃষকদের বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। তাই এ সময় থানা বা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় পরামর্শ নিতে হবে। সমস্যা দেখা দিলে আলু খেতে ছত্রাক নাশক স্প্রে করারও পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে অধিদফতর থেকে।

রাজশাহী আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কামাল উদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, সোমবার রাজশাহীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সকাল ৬টায় বাতাসের আদ্রতা ছিল ৭০ শতাংশ এবং বেলা ৩টায় ছিল ৩৫ শতাংশ।

আবহাওয়াবিদ কামাল উদ্দিন জানান, গত কয়েক দিন থেকেই তাপমাত্র কমছে। তবে আজই প্রথম তাপমাত্রা ১০ এর নিচে নেমেছে। বর্তমানে রাজশাহীর ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বইছে। আগামী কয়েক দিনের মধ্যে এই অবস্থার উন্নতির কোনো সম্ভাবনা নেই। তবে রাতে কুয়াশা বাড়তে শুরু করলে দিনে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়তে পারে।
কিন্তু দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচেই অবস্থান করবে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহ জুড়ে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে রাজশাহী ও আশপাশের জেলার ওপর দিয়ে।