Thursday , August 18 2022
প্রচ্ছদ / বিশ্ব / তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ার করলো চীন

তাইওয়ান নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ার করলো চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : তাইওয়ানকে স্বাধীন করার যে কোনো চেষ্টায় বেইজিং সামরিক পদক্ষেপ নিতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করবে না বলে যুক্তরাষ্ট্রকে হুঁশিয়ার করেছেন চীন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার সিঙ্গাপুরে এক এশীয় নিরাপত্তা সম্মেলনের সাইডলাইনে মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনের সঙ্গে বৈঠকে চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফিংহে এ হুঁশিয়ারি দেন।

ওয়েই বলেন, তাইওয়ানকে চীন থেকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা হলে চীনা সামরিক বাহিনীর হাতে যুদ্ধ ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প থাকবে না। লয়েড অস্টিনও পরে তাইওয়ানের আশপাশে চীনের সামরিক কর্মকাণ্ডকে ‘উসকানিমূলক, অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিকারী’অ্যাখ্যা দেন। তিনি বলেন, এখন প্রায় প্রতিদিনই স্বশাসিত দ্বীপটির কাছ দিয়ে রেকর্ড সংখ্যাক চীনা বিমান উড়ে যাচ্ছে, যা ‘অঞ্চলটির শান্তি ও স্থিতিশীলতায় বিঘ্ন ঘটাচ্ছে’।

চীন স্বশাসিত তাইওয়ানকে তার অবিচ্ছেদ্য অংশ মনে করে, যে অবস্থানের ভিত্তিতে ওয়েই তাইওয়ানে যুক্তরাষ্ট্রের অস্ত্র বিক্রির তীব্র নিন্দা জানান। কেউ যদি তাইওয়ানকে চীন থেকে বিচ্ছিন্ন করতে চায় তাহলে যত মূল্যই দিতে হোক না কেন চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) হাতে যুদ্ধ ছাড়া অন্য কোনো বিকল্প থাকবে না।

পিএলও ‘তাইওয়ানের স্বাধীনতার’ যে কোনো চেষ্টা গুড়িয়ে দেবে এবং দেশের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষা করবে চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী এমনটা বলেছেন বলে জানিয়েছেন তার এক মুখপাত্র।

অস্টিন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র স্থিতাবস্থা বজায় রাখতেই অঙ্গীকারাবদ্ধ, যেখানে বেইজিংয়ের হাতেই কেবল চীনের শাসনভার আছে এর স্বীকৃতি এবং তাইওয়ানের স্বাধীনতার বিরোধিতা করা হয়েছে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, শক্তি প্রয়োগের মাধ্যমে উত্তেজনা নিরসনের চেষ্টা করা যাবে না।

উল্লেখ্য, সাংগ্রি-লা ডায়লগ নিরাপত্তা সম্মেলনের সাইডলাইনে মার্কিন ও চীনা দুই্ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মধ্যে প্রথম এ বৈঠকটি প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে চলে।