Friday , September 30 2022
প্রচ্ছদ / অর্থ-বানিজ্য / স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটার কার্যক্রম শুরু করলো ওয়ালটন

স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটার কার্যক্রম শুরু করলো ওয়ালটন

ডেস্ক : স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটার কার্যক্রম শুরু করলো দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড ওয়ালটন। উদ্দেশ্য প্রতিষ্ঠানটির সেলস আউটলেটগুলোতে আগত ক্রেতাদের ব্র্যান্ড ও পণ্য সম্পর্কে সর্বোত্তম সেবা ও প্রয়োজনীয় তথ্য দেয়া। তাদেরকে উপযুক্ত পণ্যটি ক্রয়ের সিদ্ধান্ত নিতে সহযোগিতা করা। স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটারগণ মূলত ওয়ালটন গ্রুপের বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও পণ্যের প্রোমোশন এবং বিপণনে কাজ করবেন। মঙ্গলবার রাজধানীর করপোরেট অফিসে ‘স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটারস’ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ও সিইও গোলাম মুর্শেদ। সে সময় তিনি স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন ক্রেতার আগ্রহকে চাহিদায় পরিণত করাই হবে তাদের প্রধান কাজ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ পিএলসি’র অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর আবুল বাশার হাওলাদার, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর এমদাদুল হক সরকার ও হুমায়ূন কবীর, প্লাজা ট্রেডের সিইও মোহাম্মদ রায়হান, সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এস এম জাহিদ হাসান, তানভীর রহমান, আনিসুর রহমান মল্লিক, মোস্তফা নাহিদ হোসেন, আরিফুল আম্বিয়া, আমিন খান, ড. সাখাওয়াৎ হোসেন, আল ইমরান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ালটনের চিফ মার্কেটিং অফিসার মোহাম্মদ ফিরোজ আলম। তিনি জানান, প্রাথমিকভাবে ৫০ জন স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটার নিয়ে এ কার্যক্রম শুরু হলো। ওয়ালটনের ২৫টি সেলস আউটলেটে পাইলট প্রকল্প হিসেবে স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটারগণ কাজ করবেন। পর্যায়ক্রমে দেশের সব সেলস আউটলেটে স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটার নিয়োগ দেয়া হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওয়ালটন সিইও গোলাম মুর্শেদ বলেন, আমরা সাধারণত ফলাফলটা দেখি। এর পেছনের কঠিন সংগ্রাম, প্রচেষ্টা ও কঠোর পরিশ্রমটা নজরে আসে না। প্রকৃতপক্ষে একটা ব্র্যান্ড হতে গেলে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। আপনারা একঅর্থে সৌভাগ্যবান যে দেশের শীর্ষ ও প্রতিষ্ঠিত ব্র্যান্ডের পক্ষে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন। আপনাদের শক্তি হলো ওয়ালটন ব্র্যান্ড এবং পণ্যের বহুমুখী ফিচার। এই শক্তি নিয়ে আপনারা ক্রেতার পণ্য সম্পর্কে জানার আগ্রহকে চাহিদা এবং বিক্রয়ে পরিণত করবেন।

তিনি আরো বলেন, ব্র্যান্ড প্রোমোটারগণ বিক্রেতা ও ক্রেতার মাঝে ইনফ্লুয়েন্সার হিসেবে কাজ করবে। ক্রেতাদের প্রয়োজনীয় ও উপযুক্ত পণ্যটি কেনার সিদ্ধান্ত নিতে সহযোগিতা করাই হবে তাদের প্রধান কাজ। ক্রেতা তার যে প্রয়োজনটা নিয়ে আপনার কাছে আসবে, তিনি যেন খালি হাতে ফিরে না যান, সেটা নিশ্চিত করতে হবে।

গোলাম মুর্শেদ বলেন, আমরা ওয়ালটনের পক্ষে কাজ করছি, এটাই আমাদের মূল শক্তি। আমরা সবাই স্বতন্ত্র বা একে অন্যের চেয়ে আলাদা। সবার নিজস্ব কিছু গুণ আছে, শক্তি ও যোগ্যতা আছে। সেই শক্তি ও সামর্থকে কাজে লাগিয়ে নিজের মধ্যে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে হবে। ব্র্যান্ড প্রোমোটারগণ ভ্যালু অ্যাডিং পয়েন্ট হিসেবে কাজ করবেন। তারা ক্রেতাকে বিমোহিত করে তাকে পণ্যটি ক্রয়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে সহযোগিতা করবেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ স্টার ব্র্যান্ড প্রোমোটারদের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ ও দিক-নির্দেশনা দেন।